Thursday , November 26 2020
Breaking News

কেনেডি-লুগার ইয়ুথ এক্সচেঞ্জ অ্যান্ড স্টাডি (YES) প্রোগ্রামে আবেদন করুন এখনই!

ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০২০- ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস আনন্দের সাথে কেনেডি-লুগার ইয়ুথ এক্সচেঞ্জ অ্যান্ড স্টাডি (YES) প্রোগ্রাম, ২০২১-২০২২’র জন্য আবেদন আহ্বান করছে। যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেট’র অর্থায়নে ইয়েস (YES) প্রোগ্রামের আওতায় বাংলাদেশের ৮-১১ গ্রেডের ভালো শিক্ষাগত ফলাফল করা হাই স্কুল শিক্ষার্থীদেরকে এক শিক্ষাবর্ষকাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানের জন্য বৃত্তি প্রদান করা হয়। শিক্ষার্থীরা আমেরিকান পরিবারের আতিথেয়তায় অবস্থান করেন এবং আমেরিকান শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপচারিতা বজায় রেখে আমেরিকার হাই স্কুলে লেখাপড়া করেন। শিক্ষার্থীরা স্কুল ও স্থানীয় কমিউনিটির সক্রিয় সদস্য হয়ে ওঠেন এবং পাঠ্যক্রমের বাইরের নানা কার্যক্রম, স্বেচ্ছামূলক প্রকল্প এবং স্থানীয় সামাজিক অনুষ্টানাদিতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে নেতৃত্বদানের মূল্যবান দক্ষতা অর্জন করেন। শিক্ষার্থীরা আমেরিকানদের কাছে বাংলাদেশী সংস্কৃতি ও মূল্যবোধ তুলে ধরারও সুযোগ পান। প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরাও এ কার্যক্রমে সুযোগ পেতে পারেন এবং তাদের অংশগ্রহণ উৎসাহিত করা হচ্ছে। আবেদনপত্র জমা দেয়ার শেষ সময় আগামী ১৫ নভেম্বর ২০২০ বাংলাদেশ স্থানীয় সময় বিকাল ৫:০০ টা।

ইয়েস (YES) বৃত্তিটি একটি মেধাভিত্তিক ও উন্মুক্ত কার্যক্রম যার আওতায় নিম্নোক্ত শর্তাদি পূরণ সাপেক্ষে সবাই সম্পূর্ণ বিনা খরচে আবেদন করতে পারেন:

কার্যক্রম শুরুর দিনে (১ আগস্ট ২০২১) বয়স ১৫-১৭ বছরের মধ্যে হতে হবে (১৫ বছরের একদিন কমও নয় আবার ১৭ বছরের একদিন বেশীও নয়)।
জন্ম তারিখ ১ আগস্ট ২০০৪ থেকে ১ আগস্ট ২০০৬-এর মধ্যে হতে হবে।
বর্তমানে বাংলাদেশী উচ্চ বিদ্যালয় বা কলেজের (মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান) ৮ম, ৯ম, ১০ম বা ১১শ শ্রেণীতে ভর্তি থাকতে হবে। বিদেশে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী নাগরিকেরা আবেদনের জন্য যোগ্য হবেন না।
বিগত দুই শিক্ষাবর্ষে কোন শ্রেণীতে অকৃতকার্য হননি এবং গড়ে বি সমমান বা তার চেয়ে ভালো ফলাফল থাকতে হবে।
ইংরেজিতে কথা বলা ও লেখাপড়ার জন্য ইংরেজি ভাষায় পর্যাপ্ত দক্ষতা থাকতে হবে।
গত পাঁচ বছরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করে থাকলে তা মোট ৯০ দিনের বেশি হতে পারবে না।
আবেদনকারীর মাতা-পিতার যে কেউ অথবা উভয়ই যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস বা যুক্তরাষ্ট্র মিশনের বর্তমান কর্মী হতে পারবে না।
পরিবার ও আত্মীয়দের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসনের আবেদনকারীরা আবেদনের জন্য যোগ্য হবেন না।
বাংলাদেশী নাগরিক হতে হবে এবং যুক্তরাষ্ট্র বা অন্য কোন দেশের দ্বৈত নাগরিক বা স্থায়ী অভিবাসী হতে পারবেন না।
যুক্তরাষ্ট্রের জে-১ ভিসার জন্য যোগ্যতার শর্তাবলী পূরণ করতে হবে (উদাহরণস্বরূপ, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকেরা জে-১ ভিসার জন্য যোগ্য নন।)
আবেদনকারীদের নিকট প্রত্যাশিত বিষয়াদি:

নেতৃত্বের দক্ষতা প্রদর্শনের সক্ষমতা
এক শিক্ষাবর্ষের জন্য নিবিড় শিক্ষা কার্যক্রম, সামাজিক সেবা কর্ম এবং শিক্ষা সফরে পুরোপুরি অংশ নেয়ার আগ্রহ ও সক্ষমতা
আমেরিকার হাই স্কুল জীবনের সাথে খাপ খাওয়ানো এবং আমেরিকান কোন পরিবারের আতিথেয়তায় থাকার প্রস্তুতি
পরিণত, দায়িত্বশীল, স্বনির্ভর, আত্মবিশ্বাসী, মুক্তমনা, সহনশীল, চিন্তাশীল ও অনুসন্ধানী বৈশিষ্ট্য
নিবিড় শিক্ষা কার্যক্রম, সামাজিক সেবা কর্ম ও শিক্ষা সফরে পুরোপুরি অংশ নেয়ার আগ্রহ ও সক্ষমতা, ক্যাম্পাস জীবনের সাথে সহজভাবে মানিয়ে নেয়া, জায়গা ভাগাভাগি করে থাকার প্রস্তুতি, নিজ দেশের থেকে ভিন্ন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক রীতির সাথে মানিয়ে নেয়ার আগ্রহ ও সক্ষমতা
আমেরিকার স্কুল ও জনসমাজে বাংলাদেশী সংস্কৃতিকে যথাযথভাবে উপস্থাপন করার সক্ষমতা
কার্যক্রম শেষে বাংলাদেশে ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি।
আবেদনের বিস্তারিত নির্দেশাবলী ডাউনলোড করুন: http://www.iearnbd.org/.

আপনি এই কার্যক্রমের জন্য যোগ্য কিনা নিশ্চিত হতে আবেদন শুরুর আগে এর শর্তাবলী যাচাই করুন। মনে রাখবেন, যোগ্যতার শর্তাবলী যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেট কর্তৃক নির্ধারিত এবং এর ব্যতিক্রম করা সম্ভব নয়।

আবেদনের নির্দেশাবলী পর্যালোচনার পর আপনার আরো কোন প্রশ্ন থাকলে yesinfo@iearnbd.org বা shahidtx@state.gov ঠিকানায় ই-মেইল করুন।

About marianews24

Check Also

You have the power to steer our country in the right direction. Your voice matters more than ever. Use it.

You have the power to steer our country in the right direction. Your voice matters …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *